যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম, ঔষধ নাম ও দাম, কেন হয়, ঘরোয়া উপায়

যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম | যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ | যোনিতে চুলকানি হওয়ার কারণ | যোনিতে চুলকানি হয় কেন | যোনিতে চুলকানি দূর করার ঘরোয়া উপায় এগুলো নিয়ে বিস্তারিত সম্পূর্ণ তথ্য নিয়ে ব্লগ আলোচনা করা হয়েছে। 



যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম,যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ,যোনিতে চুলকানি হওয়ার কারণ,যোনিতে চুলকানি হয় কেন,যোনিতে চুলকানি দূর করার ঘরোয়া উপায়,মেয়েদের গোপনাঙ্গের চুলকানি দূর করার ওষুধের নাম,যোনিতে চুলকানি দূর করার উপায়,পুরুষাঙ্গের চুলকানি দূর করার ক্রিমের নাম
যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম | যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ

Table of Contents

যোনিতে চুলকানি হওয়ার কারণ | যোনিতে চুলকানি হয় কেন

যোনিতে বিভিন্ন কারণে চুলকানি হতে পারে। তবে ইস্ট নামক ফানজাই এর কারণে সবথেকে বেশি চুলকানি দেখা দেয়। আমাদের দেহে প্রচুর ফানজাই আছে। এর মধ্যে ক্যান্ডিডা একটি। ক্যান্ডিডা হলো ইস্টের গণ। সাধারণত ক্যান্ডিডা কোন প্রভাব ফেলে না তবে এটি মাত্রাতিরিক্ত হয়ে গেলে এটি ইনফেকশনের জন্ম দিতে পারে। 
একজন নারী তার জীবনকালের কোন না কোন সময়ে অন্তত একবার ইস্ট ইনফেকশনের সম্মুখীন হয়। সুস্থ যোনিতে ক্যান্ডিডা থাকে তবে এটি অস্বাভাবিক হারে বেড়ে গেলে চুলকানির সৃষ্টি হতে পারে। 
  • হস্তমৌথুন অথবা সঙ্গমের সময় অসস্তি হলে যোনির ভিতরে চুলকানির সৃষ্টি হতে পারে।
  • এছাড়া বিভিন্ন কারণে যোনির ভিতরে চুলকানি হয়। যেমন হরমোন পরিবর্তনের সময়, ঘুমে ব্যাঘাত ঘটলে
  • সাবান অথবা স্প্রের কারণে যোনির ভিতরে চুলকানি হতে পারে। 
  • ব্যাকটেরিয়া জনিত কারনেও যোনির মধ্যে চুলকানির সৃষ্টি হয়। 
  • সুস্থ যোনিত সাধারণত বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটেরিয়া থাকে। তবে ব্যাকটেরিয়ার অস্বাভাবিক বৃদ্ধি অথবা বাইরে থেকে আগত কোন খারাপ ব্যাকটেরিয়ার প্রভাবে এই চুলকানির সৃষ্টি হতে পারে। 
  • Gardnerella vaginalis নামক ব্যাকটেরিয়ার কারনে সাধারণত যোনিতে চুলকানির সৃষ্টি হয়।
  • সঙ্গমের সময় কনডম ব্যবহার না করা অথবা একাধিক ব্যক্তির সাথে সঙ্গমে জড়িত হলে এই ব্যাকটেরিয়া জনিত চুলকানির সৃষ্টি হতে পারে।
আরো পড়ুন: 


যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ

যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ আপনি ফার্মেসীতে প্রচুর ঔষধ পেয়ে যাবেন। তবে এখানে আমরা সবথেকে ফলদায়ক ছয়টি ঔষধ নিয়ে আলোচনা করবো। এছাড়া নিচের দিকে “যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম” সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

See also  দাউদের সবচেয়ে ভালো ঔষধ | নাম ও দাম | কার্যকরী ঘরোয়া চিকিৎসা

১. আর্টিকা ২৫ ( Artica 25 )

আর্টিকা ২৫ হলো যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ। চুলকানির চিকিৎসার ক্ষেত্রে ডাক্তাররা সাধারণত এই ঔষধটির অনুমোদন দিয়ে থাকে। আর্টিকা ২৫ ঔষধটি হিস্টামাইন ব্লক করে চুলকানি সৃষ্টিকারী কেমিক্যাল উৎপন্ন করতে বাধা দেয়। 
আর্টিকা ২৫ যোনিতে চুলকানি দুর করার একটি ঔষধ
এছাড়া এই ঔষধটি এনজাইটি দূরীকরনেও অনেক কার্যকরী। আর্টিকা ২৫ ঔষধটি ফার্মেসী থেকে আপনি ৳ ২৭.০৫ টাকায় কিনতে পারবেন। রাতের খাবার খাওয়ার পরে এই ঔষধটি খাওয়া যাবে। তবে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করবেন।
  • আর্টিকা ২৫ এর দাম কত? 
এই ঔষধটির বাজার মূল্য ৳২৭.০৫ টাকা টাকা। ঔষধটি ক্রয় করতে চলে যান Arogga. artica।25

২. ডারমা ৫০ ( Derma 50 )

ডারমা ৫০ হলো যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ। ডারমা ৫০ এর কাজ কি? যোনিতে ফানগাসের কারণে চুলকানির সৃষ্টি হলে এই ঔষধটি সেবন করতে পারেন। ডেরমা ৫০ একটি এন্টিফাঙ্গাল ঔষধ। এটি দেহে ইস্ট সহ অন্যান্য চুলকানি সৃষ্টিকারী ফাঙ্গাসের কোষ নষ্ট করে দেয়। 
ডারমা ৫০ এর কাজ কি যোনিতে চুলকানি দুর করার একটি ঔষধ

ফলে এইসব চুলকানি সৃষ্টিকারী ফাঙ্গাসের পরিমাণ কমে যায় এবং চুলকানি থেকে প্রতিকার পাওয়া যায়। তবে কিডনি বা লিভারে কোন সমস্যা হলে এই ঔষধটি সেবন করবেন না অথবা ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করুন। 
  • ডারমা ৫০ এর দাম কত?

এই ঔষধটির বাজার মূল্য ৳৭.২০ টাকা। বিস্তারিত ও ক্রয় করতে চলে যান Arogga.Derma50

৩. ফ্লুগাল ৫০ ( Flugal 50 )

Flugal 50 হলো যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ। ফ্লুগাল ৫০ ঔষধটিও ফাঙ্গাসের উৎপাদন কমিয়ে দেয়। তবে এই ঔষধটি অন্যান্য ফাঙ্গাস ধংসকারী ঔষধের থেকে বেশি শক্তিশালী এবং কার্যকরী। এটি ফাঙ্গাস ধংস করার সাথে সাথে তার উৎপাদন ক্ষমতাও কমিয়ে দেয়। 
ফলে চুলকানি থেকে আরাম পাওয়ার সাথে সাথে পরবর্তীতে চুলাকনি হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। এটি একটি শক্তিশালী ঔষধ হওয়ায় অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করবেন। এই ঔষধটি আপনি বাজারে ৮০ টাকায় পেয়ে যাবেন।
ফ্লুগাল ৫০ ( Flugal 50 )

  • Flugal 50 এর দাম কত? 

এই ঔষধটির বাজার মূল্য ১০ টি ক্যাপসুলের দাম ৳৭২.৬৩ টাকা। বিস্তারিত ও ক্রয় করতে চলে যান Arogga.Flugal50

৪. অ্যালাট্রল ১০ ( Alatrol 10 )

অ্যালাট্রল ১০ হলো যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ অ্যালাট্রল বাংলাদেশের কোম্পানি স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের তৈরী একটি ঔষধ। চুলকানি দূরীকরণে ঔষধটি প্রচুর ব্যবহৃত হয়। যাদের এলার্জি আছে তাদের কাছে এই ঔষধটি অনেক পরিচিত। অ্যালাট্রল ট্যাবলেট বিভিন্ন রুপে পাওয়া যেতে পারে। 
  •  অ্যালাট্রল 10 এর দাম কত? 
প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ট্যাবলেট আকারে পাওয়া যায় যার মুল্য ২৭.০৭ টাকা  এবং বাচ্চাদের জন্য সিরাপ আকারে পাওয়া যায় যার মূল্য ৩০ টাকা। বিস্তারিত ও ক্রয় করতে চলে যান Arogga.Alatrol10

৫. ইটিজিন

ইটিজিন হলো যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ। ইটিজিন অনেকটা অ্যালাট্রলের মতই কাজ করে। এটি দেহের চুলকানি সৃষ্টিকারী কেমিক্যাল উৎপাদন করতে বাধা প্রদান করে। অ্যালাট্রলের থেকে ইটিজিনের দাম অনেক কম। এছাড়া এটি চুলকানি দূরীকরণে অনেক সাহায্য করে। অতএব আপনি সাশ্রয়ী দামে অ্যালাট্রলের পরিবর্তে এটি নিতে পারেন। এই ঔষধটির বাজার মূল্য প্রতি ১০ টি ট্যাবলেট ২২ টাকা।
বিস্তারিত ও ক্রয় করতে চলে যান Arogga.Etizin

6. ফাঙ্গিনিল ৫০ ( Funginil 50 )

ফাঙ্গিনিল ৫০ হলো যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ। ফাঙ্গিনিল ৫০ একটি ফাঙ্গাস ধংসকারী ঔষধ। এছাড়া এটি ফাঙ্গাস বৃদ্ধি করণে বাধা প্রদান করে। এই ঔষধটি অনেকটা ফ্লুগাল ৫০ এর মতই কাজ করে তবে এটি কম শক্তিশালী। তবে চুলকানি দুর করার ক্ষেত্রে যথেষ্ট কার্যকরি। যারা বেশি মাত্রার ঔষধ সেবন করতে পারে না তাদের জন্য মুলত ডাক্তার ফাঙ্গিনিল ৫০ প্রেসক্রাইব করেন। এই ঔষধটির বাজারমূল্য ৫৬ টাকা।

যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম

আপনি যদি তাড়াতাড়ি যোনির চুলকানি দূর করতে চান তাহলে ঔষধের সাথে সাথে কিছু ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। নিচে ছয়টি সেরা ক্রিম নিয়ে আলোচনা করা হলো।

১. ফেন্টিকোনা (যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম)

ফেন্টিকোনা যোনির চুলকানি দূর করার একটি কার্যকরী ক্রিম। এটি বর্তমানে অনেক জনপ্রিয়। কারণ এই ক্রিম ব্যবহার করলে খুব দ্রুত চুলকানি দূর হয়। এই ক্রিমটি আপনার যোনিতে ব্যবহার করলে এটি চুলকানি সৃষ্টিকারী সকল ফাঙ্গাস ধংস করে দেয় এবং ফাঙ্গাস উৎপন্ন হওয়া রোধ করে। এটি ব্যবহার করার আগে অবশ্যই আপনার যোনি ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিবেন।

২. হিমালয়া ভি জেল (যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম)

হিমালয়া ভি জেল ব্যাকটেরিয়া জনিত, ফাঙ্গাস জনিত অথবা এলার্জী জনিত সকল চুলকানি দুর করতে সাহায্য করে। এটি যোনির ইনফেকশনের বিরুদ্ধে লড়াই করতেও সক্ষম। এছাড়া যোনিতে হওয়া বিভিন্ন ধরনের উপসর্গ নিরসনেও এটি কার্যকরী। হিমালয়া ভি জেল আপনি বিভিন্ন ফার্মেসীতে পেয়ে যাবেন। এই ক্রিমটির বাজারমূল্য ৮৫০ টাকা।

৩. ফেন্টিজিল ভিটি (যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম)

ফেন্টিজিল ভিটি স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের তৈরী একটি ক্রিম। এটি মুলত যোনির চুলকানি রোধে বিশেষ ভাবে তৈরী করা হয়েছে। এছাড়া যোনিতে চুলকানির প্রভাবে বা অন্য কারণে জালাপোড়া হলে এটি ব্যবহার করতে পারেন। এটি আপনি অনলাইনে অর্ডার করতে পারেন অথবা বাজার থেকে কিনতে পারেন। ফেন্টিজিল ভিটি ক্রিমটির বাজারমূল্য ১১০ টাকা।

৪. নিওস্টেন ভিটি (যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম)

নিওস্টেন ভিটি অনেক কার্যকরী একটি ক্রিম। এটি আপনার যোনির চুলকানি দূর করা সহ যোনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। নিওস্টেন ভেট ক্রিমটি বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের তৈরী। অনলাইনে আপনি এই ঔষধটি পেয়ে যাবেন। এছাড়া বিভিন্ন ফার্মেসীতে পেতে পারেন। এই ক্রিমটির বাজারমূল্য ৪৫০ টাকা।

৫. ওভেসটিন ১৫ (যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম)

ওভেসটিন ১৫ যোনিতে ব্যবহার করার যোগ্য একটি ক্রিম। এটি যোনির চুলকানি সহ বিভিন্ন উপসর্গ দূর করতে সাহায্য করে। ডাক্তাররা চুলকানি সহ যোনির বিভিন্ন চিকিৎসায় এই ক্রিমটি প্রেসক্রাইব করে থাকেন। এই ক্রিমটির বর্তমান বাজারমূল্য ১২০০ টাকা।

৬. ফেমাসটিন ১৫ (যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম)

ফেমাসটিন ১৫ যোনির চুলকানি দুর করার ক্রিম। এটি যোনির উপরিভাগের ফাঙ্গাস, ব্যাকটেরিয়া, জীবাণু ধংস করে। এছাড়া চুলকানির অনুভূতি সিথিল করে। এর ফলে আপনার যোনির চুলকানি দুর করা ছাড়াও সাময়িক আরাম পাবেন। এই ক্রিমটির বাজারমূল্য ৯৬০ টাকা।

যোনিতে চুলকানি দূর করার ঘরোয়া উপায়

আমাদের গোপনাঙ্গের চিকিৎসার জন্য আমরা অনেকেই চিকিৎসকের কাছে যেতে লজ্জা পায়। এক্ষেত্রে আপনি কিছু ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করতে পারেন। নিছে যোনিতে চুলকান দুর করার ৭ টি উপায় সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

১. বেকিং সোডা দিয়ে গোসল

বেকিং সোডা চুলকানি দুর করার ক্ষেত্রে খুবই কার্যকারি। এটি যোনিতে চুলকানি সৃষ্টিকারী ক্যান্ডিডা জাতীয় কোষ ধংস করে দেয়। গোসল করার সময় ১ থেকে ৪ কাপ বেকিং সোডা মিশিয়ে নিয়ে গোসল করতে পারেন। অথবা বেকিং সোডার পেস্ট তৈরী করে চুলকানির স্থানে লাগাতে পারেন।

২. দই

যোনিতে চুলকানি দুর করার ক্ষেত্রে সবথেকে প্রচলিত এবং সবথেকে কার্যকরী উপাদান হলো দই। দই ভালো ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন করে এবং যোনিতে চুলকানি সৃষ্টিকারী খারাপ ব্যাকটেরিয়া অপসারণ করতে সাহায্য করে। এছাড়া সাময়িক আরাম পাওয়ার জন্য দই ব্যবহার করা যেতে পারে। যোনিতে দই এর প্রলেপ লাগালে একটি ভালো প্যাড ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। এতে আপনার কাপড় ময়লা হবে না। উল্লেখ্য যে সম্পূর্ণ দুধ থেকে উৎপন্ন দই ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন।

৩. সুতির আন্ডারওয়ার পরুন

যোনিতে চুলকানি সৃষ্টি হওয়ার অন্যতম কারণ সিনথেটিক কাপড়ের আন্ডারওয়ার পরিধান করা। সুতির আন্ডারওয়ার ইস্ট উৎপাদনে বাধা প্রদান করে। ফলে চুলকানির সৃষ্টি হয়না। এছাড়া সুতির আন্ডারওয়ার পরলে আপনি চুলকানি থেকে কিছুটা আরাম পাবেন।

৪. নারিকেল তেল

নারিকেল তেল ইস্ট তৈরী করতে বাধা প্রদান করে। এটি যোনির চুলকানি ছাড়াও যেকোন চুলকানির ক্ষেত্রে কার্যকরী। আপনি সরাসরি যোনিতে নারিকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। তবে বিশুদ্ধ নারিকেল তেল ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করলে অবশ্যই প্যাড পরবেন। এতে আপনার কাপড় ভালো থাকবে।

৫. প্রোবায়োটিক গ্রহণ করুন

ব্যাকটেরিয়া যোনির জন্য ভালো। প্রোবায়োটিক ভালো ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। ভালো ব্যাকটেরিয়া গুলো আবার চুলকানি সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধংস করে দেয়। অতএব প্রোবায়োটিক গ্রহণ করলে আপনি পরোক্ষভাবে চুলকানি অপসারণ করতে পারবেন। ফার্মেসীতে খোজ করলে আপনি প্রোবায়োটিক পেয়ে যাবেন। এছাড়া ডাক্তাররা যোনিতে চুলকানির চিকিৎসায় প্রোবায়োটিক সাজেস্ট করে।

৬. প্রোবায়োটিক খাবার খান

প্রোবায়োটিক গ্রহণ করার মতো প্রোবায়োটিক খাবারও ভালো ব্যাকটেরিয়া তৈরীতে সাহায্য করে। দই, কিমচি জাতীয় প্রোবায়োটিক খাবার খেতে পারেন। এটি ইস্ট জাতীয় ভাইরাস তৈরী কম করতে সাহায্য করবে।

৭. সাস্থ্যবিধি মেনে চলুন

কিছু সঠিক সাস্থবিধি মেনে চললে আপনি যোনির চুলকানি থেকে মুক্তি পেতে পারেন। প্রথমত আপনি ভিতর থেকে আপনার যোনি পরিষ্কার করতে যাবেন না। তবে গরম পানি দিয়ে বাইরের অংশ প্রয়োজন অনুযায়ী পরিষ্কার করার চেষ্টা করুন। তবে উপরের অংশে অতিরিক্ত ঘষাঘষি করবেন না। এছাড়া সুগন্ধিযুক্ত সাবান ব্যবহার করা থেকে সম্পূর্ণ রুপে বিরত থাকুন।


মানুষ যা লিখে সার্চ করেন:- যোনিতে চুলকানি দূর করার ক্রিম,যোনিতে চুলকানি দূর করার ঔষধ,যোনিতে চুলকানি হওয়ার কারণ,যোনিতে চুলকানি হয় কেন,যোনিতে চুলকানি দূর করার ঘরোয়া উপায়,মেয়েদের গোপনাঙ্গের চুলকানি দূর করার ওষুধের নাম,যোনিতে চুলকানি দূর করার উপায়,পুরুষাঙ্গের চুলকানি দূর করার ক্রিমের নাম