সেরা ১০ টি রাউটার জেনে নিন | ৫০০ টাকার রাউটার

 

সেরা ১০ টি ৫০০ টাকার রাউটার ও ১০০০ টাকার মধ্যে রাউটার এছাড়া ১৫০০ টাকার মধ্যে ভালো রাউটার গুলো জেনে নিন: তথ্য প্রযুক্তির যুগে ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া এক মূহুর্তও চলা যায় না। ব্যক্তিগত এবং দাপ্তরিক প্রায় সকল কাজেই ইন্টারনেট সংযোগের দরকার হয়।

 

 
সেরা ১০ টি রাউটার জেনে নিন | ৫০০ টাকার রাউটার
সেরা ১০ টি রাউটার জেনে নিন | ৫০০ টাকার রাউটার

 

 

একটি ডিভাইসে বিভিন্ন ভাবে ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়া যায়। এর মধ্যে ওয়াইফাই অন্যতম।তবে ওয়াইফাই চালানোর জন্য প্রয়োজন রাউটার। যত ভালো রাউটার হবে ইন্টারনেট স্পিড তত ভালো হবে।

 

তাই আজকে আমি আপনাদের সাথে আজকে ২০২৩ সালের সেরা ৫ টি ৫০০ টাকার রাউটার নিয়ে আলোচনা করবো। দেরী না করে চলুন আমাদের আজকের আলোচনা শুরু করি।

 

৫০০ টাকার রাউটার কেনার আগে এগুলো জানা প্রয়োজন

যে বিষয় গুলো পর্যবেক্ষণ করে নিবেন: 

 

৫০০ টাকার রাউটার অনেক পাওয়া গেলেও এর মধ্যে ভালো রাউটারটি আপনাকে বেছে নিতে হবে। আপনার যেহেতু পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই তাই আমরা আপনাকে আজকের পোস্টে গাইড করবো। এছাড়া আপনি পরিচিত কোন অভিজ্ঞ লোকের কাছ থেকে জেনে নিতে পারেন কোন রাউটারটি ভালো অথবা অনলাইনে ব্যবহারকারীদের রিভিউ দেখতে পারেন।

 
 

এর ফলে আপনি মোটামুটি একটি ধারণা পাবেন। এছাড়া আপনার রাউটারটি আপনার চাহিদা অনুযায়ী নিবেন। তবে রাউটার কেনার আগে নিচের বিষয় গুলো বিবেচনা করে কিনবেন।

 

১. রাউটার সর্বোচ্চ কত এমবিপিএস (MBPS) পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড দিতে সক্ষম সেটা দেখে নিবেন।

 

২. আপনি যদি বেশী কভারেজ চান তাহলে সর্বোচ্চ সংখ্যক অ্যান্টেনার রাউটার নির্বাচন করবেন।

See also  সেরা বাজেটে ৪০০০ টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল কিনুন

 

৩. বেশী সময় ওয়ারেন্টি দিয়ে থাকে এমন রাউটার কিনবেন।

 

৪. বেশী সংখ্যক LAN ও WAN পোর্ট আছে এমন রাউটার কিনবেন।

 

৫. পুর্ব অভিজ্ঞতা আছে এমন কারো পরামর্শ নিয়ে রাউটার কিনবেন।

 
 

৫০০ টাকার রাউটার সেরা ১০ টি

 

১. Tenda F6 N300 : টেন্ডা রাউটারের দাম ?

টেনডা সিরিজের রাউটার গুলো বাংলাদেশে বহুল প্রচলিত। কম দামী টেনডা রাউটারের মধ্যে Tenda F6 N300 অন্যতম একটি। এই রাউটারে আপনি ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত নেট স্পিড পাবেন। 

 

রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ২.৪ গিগাহার্টজ। ৪ টি অ্যান্টেনা সহ ৩ টি ল্যান পোর্ট এবং উইন্ডজ ৭ থেকে পরবর্তী সকল অপারেটিং সিস্টেম সাপোর্ট করবে। ১ বছরের ওয়ারেন্টি সহ রাউটারটির বাজার মুল্য ১,৫০০ টাকা।

 

২. Tenda N301: টেন্ডা রাউটার কেমন ?


রাউটার কেনার আগে অনেকের প্রশ্ন থাকে, টেন্ডা রাউটার কেমন কম!! 
দামের দিক থেকে অন্য সব রাউটারগুলির মধ্যে এই টেন্ডা রাউটারটি খুবই জনপ্রিয় যা প্রায় ইউজারদের মনে জায়গা করে নিয়েছে। 

 
০০ এমবিপিএস ইন্টারনেট স্পিড এবং ২.৪ গিগহার্টজ ফ্রিকোয়েন্সি রেট এই রাউটারটিতে পেয়ে যাচ্ছেন। ২ টি অ্যান্টেনা, ৩ টি LAN পোর্ট এবং ১ টি WAN পোর্ট এই রাউটারটিতে সংযুক্ত আছে। ১ বছরের ওয়ারেন্টি সহ এই রাউটারটির বাজারমূল্য মাত্র ১,০০০ টাকা। 

 

 

৩. Netgear WNR614


নেটগিয়ার রাউটার গুলো মুলত গেমিং এর জন্য অনেক জনপ্রিয়। এই সিরিজের রাউটার গুলো দ্রুত গতির ইন্টারনেট সহ অনেক ভালো গেমিং পারফরম্যান্স দেয়। নেটগিয়ার সিরিজের Netgear WNR614 রাউটারটি ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড দিতে সক্ষম। 

 

রাউটারটির সাথে ২ টি অ্যান্টেনা সংযুক্ত অবস্থায় আছে। এছাড়া ১ টি WAN পোর্ট এবং ৪ টি LAN পোর্ট সংযুক্ত আছে। রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ২.৪ গিগহার্টজ। ১ বছরের ওয়ারেন্টি সহ এই রাউটারটি মাত্র ১৪০০ টাকায় পেয়ে যাবেন।

 

৪. Asus RT-N12+


লো বাজেটের মধ্যে Asus RT-N12+ রাউটারটি অনেক ভালো পারফরম্যান্স দেই। ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড এই রাউটারটি থেকে পেয়ে যাবেন। এই রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ২.৪ গিগাহার্টজ। 

 

২ টি অ্যান্টেনা সহ ৪ টি LAN পোর্ট এবং ১ টি WAN পোর্ট এই রাউটারে সংযুক্ত আছে। উইন্ডজ ৭ থেকে পরবর্তী সকল সংস্করণ এবং ম্যাক ও লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম এই রাউটারটিতে সাপোর্ট করে। ২ বছরের ওয়ারেন্টি সহ এই রাউটারটি ১,৯০০ টাকায় পেয়ে যাবেন।

See also  Comparing Functional Testing Tools: Selenium vs. Cypress vs. Playwright

 

৫. D-Link DIR-650IN


এই রাউটারটি মুলত দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগের জন্য অনেক জনপ্রিয়। এই রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ২.৪ গিগহার্টজ। ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড প্রদান করলেও ৪ টি অ্যান্টেনা থাকার জন্য এই রাউটারটি অনেক ভালো পারফরম্যান্স দেয়। 

৩ টি ল্যান পোর্ট সহ উইন্ডোজ, ম্যাক, লিনাক্স ইত্যাদি অপারেটিং সিস্টেম সাপোর্ট করে। বার্ন কেস সহ তিন বছরের ওয়ারেন্টি পাবেন। রাউটারটির বাজার মুল্য ১,৫৫০ টাকা।

 

৬. Xiaomi MI 4C R4CM


শাউমি রাউটারগুলো বরাবরই বাংলাদেশে বহুল প্রচলিত। Xiaomi MI 4C R4CM মডেলের রাউটারটি এরকমই একটি। এই রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ২.৪ গিগাহার্টজ। এই রাউটারটিতে আপনি ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত নেট স্পিড পাবেন। 

 

৪ টি অ্যান্টেনা থাকাই অনেক দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগ পাওয়া যায়। উইন্ডোজ, ম্যাক এবং লিনাক্স ইত্যাদি অপারেটিং সিস্টেম সাপোর্ট করে। তবে মাত্র তিন মাসের ওয়ারেন্টি পাবেন। তিন মাসের ওয়ারেন্টি সহ এই রাউটারটির বাজার মুল্য ১,১৫০ টাকা।

 

৭. TP-Link TL-WR850N


টিপি লিংকের রাউটার গুলো বর্তমানে অনেকেই ব্যবহার করে। টিপি লিংকের এই মডেলটি থেকে আপনি ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত দ্রুতগতির ইন্টারনেট সংযোগ পাবেন। 

 

২.৪ গিগাহার্টজের ফ্রিকোয়েন্সি রেট এবং ২ টি অ্যান্টেনা রাউটারটিতে সংযুক্ত আছে। ১ টি WAN সহ ৪ টি LAN পোর্ট এই রাউটারটিতে সংযুক্ত আছে। ১ বছরের ওয়ারেন্টি সহ এই রাউটারটির বাজারমুল্য ১,৪০০ টাকা।

 

৮. DIR-615 N300


দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগের সাথে ভালো মানের সিকিউরিটি এবং ভাইরাস ফিল্টারিং এর জন্য এই রাউটারটি কিনতে পারেন। DIR-615 N300 রাউটারটি ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড দিতে সক্ষম। 

 

দুটি এন্টেনা, ১ টি LAN পোর্ট এবং ৪ টি WAN পোর্ট এই রাউটারটিতে সংযুক্ত আছে। রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ২.৪ গিগাহার্টজ। ৩ বছরের ওয়ারেন্টি সহ রাউটারটির বাজার মুল্য মাত্র ১,২৫০ টাকা।

 

৯. TL-WR820N


কম দামী রাউটার গুলোর মধ্যে এটি বর্তমানে অনেক জনপ্রিয়। এই রাউটারটিতে আপনি ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড সহ ২ টি অ্যান্টেনা সংযুক্ত অবস্থায় পাবেন।

See also  ভালো রাউটার চেনার উপায় | সবচেয়ে ভালো রাউটার কোনটি
 

এছাড়া ২ টি LAN এবং ১ WAN পোর্ট সংযুক্ত আছে। ২.৪৭ গিগাহার্টজ এর ফ্রিকোয়েন্সি রেট। ১ বছরের ওয়ারেন্টি সহ রাউটারটি মাত্র ১০৫০ টাকায় পেয়ে যাবেন।

 

১০. TP LINK AC750


একটু বেশী দাম দিয়ে যদি আপনি অনেক দ্রুত গতির একটি রাউটার কিনতে চান তাহলে এটি আপনার জন্য। এই রাউটারটি ৪৩৩ এমবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড দিয়ে সক্ষম। 

 
এছাড়া ৩ টি অ্যান্টেনা থাকায় অনেক ভালো কভারেজ পাবেন। এই রাউটারটির ফ্রিকোয়েন্সি রেট ৫ গিগাহার্টজ। ৪ টি LAN পোর্ট এবং ১ টি WAN পোর্ট রাউটারটিতে সংযুক্ত আছে। ১ বছরের ওয়ারেন্টি সহ আপনি এই অসাধারণ রাউটারটি ২,১৫০ টাকায় পেয়ে যাবেন।
 

 

৫০০ টাকার রাউটার কোথায় থেকে কিনবেন?

 

 

 

বাজারে বিভিন্ন ধরনের টেলিকম অথবা ইলেকট্রিক গ্যাজেট স্টোর থেকে আপনি ৫০০ টাকার রাউটার কিনতে পারবেন। তবে কেনার কোন বিশ্বস্ত অথবা সুনাম আছে এমন কোন দোকান থেকে কিনবেন। 

 
এছাড়া অনলাইনে প্রচুর শপ এবং মার্কেটপ্লেস আছে যেখানে আপনি ৫০০ টাকার রাউটার পেয়ে যাবেন।

 

অনলাইনে রাউটার কেনার জন্য সেরা ৩ টি ওয়েবসাইট

১. স্টারটেক (Startech)

 

 

বাংলাদেশের সবথেকে জনপ্রিয় অনলাইন গ্যাজেট স্টোর হলো স্টারটেক। এখানে আপনি প্রায় সকল কোম্পানির রাউটার সুলভ মূল্যে ঘরে বসেই কিনতে পারবেন।

 

রাউটার ছাড়াও এখান থেকে আপনি প্রয়োজনীয় অন্যান্য গ্যাজেট কিনতে পারবেন। রাউটার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ও ক্রয় করতে Star Tech এ চলে যান।

 

 

২. বিডিশপ (Bdshop)

 

 

বিডিশপ বর্তমানে বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস। বিডিশপে আপনি ইলেকট্রনিক পন্য ছাড়াও প্রায় সব ধরনের পন্য পেয়ে যাবেন। রাউটার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ও ক্রয় করতে BD Shop এ চলে যান।

 

এখান থেকে আপনি সুলভ প্রায় সবধরনের রাউটার কিনতে পারবেন। অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের তুলনায় বিডিশপের ভালো সুনাম আছে। তাই আপনি নিঃসন্দেহে এখান থেকে কিনতে পারেন।

 

 

৩. গ্যাজেটস্ বিডি (Gadgetz)

 

 

স্টারটেকের মতো গ্যাজেটস্ বিডি বাংলাদেশের আরেকটি জনপ্রিয় অনলাইন গ্যাজেট শপ। স্টারটেকের মতো গ্যাজেটস্ বিডিরও ভালো সুনাম আছে। এখান থেকে আপনি প্রায় সবধরনের রাউটার কিনতে পারবেন। এছাড়া অন্যান্য প্রয়োজনীয় গ্যাজেট এখানে পেয়ে যাবেন। রাউটার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ও ক্রয় করতে Gadgetz এ চলে যান।

 

 

 

শেষ কথা:

 

আমাদের আজকের আলোচনা এ পর্যন্তই। আশাকরি আমাদের ৫০০ টাকার রাউটার নিয়ে আজকের তৈরী করা পোস্ট আপনাদের ভালো লেগেছে। ধন্যবাদ সবাইকে।

 

 

 
 
মানুষ যা লিখে সার্চ করে: ৫০০ টাকার রাউটার,১০০০ টাকার মধ্যে রাউটার,৫০০ টাকার মধ্যে ভালো রাউটার,কম দামে ভালো রাউটার ২০২২,২০০০ টাকার মধ্যে রাউটার